Share

টপিক: হেকায়াতে ছাহাবা -প্রথম অধ্যায়-(পর্ব-১১)

আগের পর্ব

তৃতীয় দিন হযরত আলী (রাঃ)তাঁকে আবার বাড়ি নিয়ে গেলেন এবং জিজ্ঞাসা করিলেন ,ভাই তুমি কি কাজে মক্কা শরীফে এসেছ ?
হযরত আবু জর (রাঃ)প্রথমে কছম দিয়ে বললেন ,ভাই সত্যকে গোপন না করলে আমি বলতে পারি ।অতঃপর আলী (রাঃ)এর নিকট নিজের মক্কা আগমনে উদ্দশ্য বর্ননা করলেন ।
সবশুনে আলী (রাঃ) বললেন ,তিনি নিঃসন্দেহে আল্লাহ্ নবী ।সকাল বেলা আমি তোমাকে হুজুর পাক (সাঃ)এর দরবারে নিয়ে যাব ।কিন্তু চারিদিকে শত্রুতার আগুন জলছে ।তুমি আমার পিছন পিছন চলবে ।ইতিমধ্যে শত্রু কারও সাথে দেখা হলে আমি প্রসাব করবার অথবা জুতা ঠিক করার ভান করবার ভান করে বসে পড়ব ।তুমি কিন্তু আমার অপেক্ষা না করে চলতে থাকবে ।
যা হোক ভোর বেলায় তিনি (আবু জাফর (রাঃ))আলী (রাঃ) এর সাথে হুজুরে পাক (সাঃ) এর দরবারে গিয়ে উপস্থিত হলেন এবং এর কিছুখন পরেই ইসলাম গ্রহণ করে আলোর পথের অনুসারী হলেন ।

দয়ার সাগর হুজুরে আকরাম (সাঃ) হযরত আবুজর (রাঃ) মসিবতে পড়বেন ভেবে ফরমাইলেন ,আপাততঃ তুমি তোমার ইসলাম গ্রহণ প্রকাশ করোনা , বরঃ চুপে চুপে তুমি তোমার নিজের দেশে চলে যাও ।যখন আমরা জয়লাভ করব তখন তুমি চলে আসবে ।তিনি বললেন ,ইয়া রাসূল (সাঃ) !যেই আল্লাহ্ র কুদরতি হাতে আমার জীবন আমি তাঁর কসম খেয়ে বলছি ,বে ঈমান কাফেরদের সামনে আমি কালেমায়ে শাহাদাত পড়ব । সঙ্গে সঙ্গে তিনি মসজিদে হারামে গিয়ে উচ্চস্বরে কালেমায়ে শাহাদাত পাঠ করতে লাগলেন ।

এই কালেমা পড়িবা মাত্র চারদিক হতে কাফেরগণ জড় হই তাঁর উপর ঝাপিয়ে পড়ল এবং বেদম মারপিট করলেন যে ,তিনি প্রায় মরণাপন্ন হয়ে গেলেন ।হুজুর পাক (সাঃ) এর চাচা আব্বাস (রাঃ) যিনি তখনও ইসলাম গ্রহণ করেন নাই ,তিনি আবু জর (রাঃ) কে রক্ষা করবার জন্য তাঁর উপর হাতছানি দিয়ে শুয়ে পড়লেন ।
চলবে ...

দেশান্তরী..

জবাব: হেকায়াতে ছাহাবা -প্রথম অধ্যায়-(পর্ব-১১)

চালিয়ে যান ।

ফোরামে আছি ।

Share

জবাব: হেকায়াতে ছাহাবা -প্রথম অধ্যায়-(পর্ব-১১)

জাবেদ ভুঁইয়া wrote:

চালিয়ে যান ।

ধন্যবাদ ।

দেশান্তরী..