টপিক: কোমলতা সৌন্দর্যমন্ডিত করে

হযরত আয়েশা (রাঃ) থেকে বর্ণিত ।নবী করীম (সাঃ) বলেনঃ "যে জিনিসে কোমলতা থাকে ,কোমলতা সেটিকে সৌন্দর্যমন্ডিত করে ।যে জিনিস থেকে কোমলতা ছিনিয়ে নেওয়া সেটাই দোষদুষ্ট ও ক্রুটিযুক্ত হয়ে যায়" (মুসলিম)

প্রিয় ভাই ও বোনেরা ,
উপরোক্ত হাদিস থেকে আমরা বুঝতে পারি যে , কোমলতা এক মহত্ গুণ ।যার মধ্যে কোমলতা নেই সে সব ধরনের কল্যাণ থেকে বঞ্চিত ।আল্লাহ নিজে কোমল ও সহানুভূতিশীল ।তিনি কোমলতা ও সহানুভূতিশীলতাকে ভালোবাসেন ।
কোমলতা ছোট একটি শব্দ হলেও এর ব্যাপকতা অনেক ।কোমলতা অর্থ হচ্ছে -
ক. রাগ সংবরণ করা ,
খ. ক্ষমাশীলতা অবলম্বন করা ,
গ. সত্কাজের আদেশ দেয়া ,
ঘ. অজ্ঞ-মূর্খ লোকদের এড়িয়ে চলা ,
ঙ. মন্দকে ভালো দ্বারা প্রতিহত করা
চ. ধৈর্য ও সহনশীলতার পরিচয় দেয়া ,
ছ. ধীর-স্থিরতা অবলম্বন করা ।

রসূলে পাক (সাঃ) অপর এক হাদিসে বলেছেন ,আল্লাহ কোমল ও মেহেরবান ।তাই তিনি প্রতিটি কাজে কোমলতা ও সহনশীলতাকে পছন্দ করেন ।

তাই আসুন ভাই ,বোন ,বন্ধুরা সবাই নিজেদের মধ্যে কোমলতার গুনগুলো বৃদ্ধির মাধ্যমে সৌন্দর্য বৃদ্ধি করি ।

জবাব: কোমলতা সৌন্দর্যমন্ডিত করে

খুবই সুন্দর একটা পোস্ট। ধন্যবাদ।

আপনার আমন্ত্রণ রইল আমাদেরে এলাকায় মন্তব্য করা ও কিছু লিখার জন্য চলনবিল